কক্সবাজার শহরের শীর্ষ মোটরসাইকেল ছিনতাইকারি নবাব শরীফ গ্রেপ্তার


নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার শহরের শীর্ষ মোটরসাইকেল ছিনতাইকারি নবাব শরীফকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় তাঁর সহযোগী বাদশাকেও গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল সোমবার বিকেলে শহরের পাহাড়তলী এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
আটককৃতরা হলেন, শহরের বিজিবি ক্যাম্প সাবমেরিন ক্যাবল এলাকার আলী জোহারের পুত্র নবাব শরীর ওরফে বার্মাইয়া শরীফ (২৪) ও একই এলাকার মৃত আব্দুল মোনাফের ছেলে মো. বাদশা (২৭)।
সূত্র জানা গেছে, কক্সবাজার শহর ও আশপাশের এলাকার মোটরসাইকেল ছিনতাই সিন্ডিকেটের নেতৃত্ব দেয় নবাব শরীর ওরফে বার্মাইয়া শরীফ। ইতোমধ্যে শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে তার নেতৃত্বে অন্তত শতাধিক মোটরসাইকেল ছিনতাই হয়। এরমধ্যে সাবমেরিন ক্যাবল এলাকার গোলাম আরিফ লিটন নামে এক ব্যক্তির পর পর তিনটি (পালসার, এপাসি, হাঙ্ক) মোটরসাইকেল চুরি করে নবাব শরীফ। এসব ঘটনায় বিভিন্ন সময়ে অভিযোগ করা হয়। সর্বশেষ একটি ঘটনায় স্থানীয়ভাবে শালিসও হয়। ওই শালিসে মোটরসাইকেলের সমপরিমাণ টাকা জরিমানা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই জরিমানার টাকা পরিশোধ করা হয়নি।
এদিকে দীর্ঘদিন ধরে শহরে বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল ছিনতাই করে বেড়ালেও প্রভাবশালী চক্রের ছত্রছায়ায় ধরাছোয়ার বাইরে থেকে যায় নবাব শরীফ। শেষ পর্যন্ত মোটরসাইকেল চোরের চাঞ্চল্যকর একটি ঘটনায় পুলিশের জালে ফেঁসে যায় নবাব শরীফ ও তার সহযোগি বাদশা।
পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার দুপুরের দিকে কক্সবাজার সদর থানা সংলগ্ন এলাকা থেকে একটি মোটরসাইকেল ছিনতাই করে নবাব শরীফ ও বাদশা। এরপর সিসিটিভি ক্যামরার ফুটেজের ভিত্তিতে সনাক্ত করে অভিযান চালায় পুলিশ। পরে বিকাল ৫টার দিকে পাহাড়তলী এলাকা থেকে নবাব শরীফ ও বাদশাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিত কুমার বড়–য়া জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাহাড়তলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে নবাব শরীফ ও তাঁর সহযোগি বাদশাকে গ্রেপ্তার করা হয়। নবাব শরীফ একজন পেশাদার মোটরসাইকেল চুর। তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।
Share on Google Plus

About Iqbal Bahar

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment