ইসির রোডম্যাপ চূড়ান্ত সংলাপ শুরু ৩১শে জুলাই

ইলেট্রনিক ভোটিং সিস্টেম (ইভিএম) বাদ দিয়ে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রোডম্যাপ চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। সংলাপ, নির্বাচনী আইন ও বিধি সংস্কার, সীমানা পুনঃনির্ধারণ, ভোটার তালিকা হালনাগাদ, রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন, ভোট কেন্দ্র স্থাপন এবং নির্বাচন কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ এ সাতটি বিষয়কে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে রোডম্যাপে। এরপর রোডম্যাপ নিয়ে আগামী ৩১শে জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে সংলাপ। চলবে অক্টোবর পর্যন্ত। এ বিষয়ে ইসির সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ সাংবাদিকদের জানান, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রোডম্যাপ চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে সাতটি বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। ১৬ই জুলাই এটি বই আকারে প্রকাশ করা হবে। সংলাপের বিষয়ে সচিব বলেন, ৩০শে জুলাই সংলাপ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা পরিবর্তন করা হয়েছে। সুশীল সমাজের সঙ্গে ইসির বৈঠকটি ৩১শে জুলাই বিকাল ৩টা থেকে শুরু হবে। এ ছাড়া গণমাধ্যমের প্রতিনিধি, নির্বাচন পর্যবেক্ষক ও রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ করা হবে। রাজনৈতিক দলগুলোকে সঙ্গে কবে থেকে সংলাপ শুরু করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্দিষ্ট কোনো তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। আগস্ট থেকে অক্টোবর পর্যন্ত রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপ করা হবে। নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনারদের সঙ্গে সংলাপের বিষয়টি রোডম্যাপের প্রাথমিক খসড়ায় থাকলে চূড়ান্ত খসড়ায় তা বাদ দেয়া হয়েছে বলে জানান ইসির সচিব মোহম্মদ আবদুল্লাহ। এ বিষয়ে তিনি মানবজমিনকে বলেন, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও সাবেক কমিশনারদের সঙ্গে সংলাপের বিষয়টি থাকলেও  তা বাদ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়াও বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার হালনাগাদের কাজ শুরু হচ্ছে ২৫শে জুলাই থেকে চলবে ডিসেম্বর পর্যন্ত। ২০১৮ সালের ১লা জানুয়ারি ভোটার হালনাগাদের চূড়ান্ত খসড়া প্রকাশ করা হবে। সীমানা পুনঃনির্ধারণ ও আইন সংস্কারে দুইজন পরামর্শক নিয়োগ দেয়া হবে বলেও জানান ইসি সচিব। আগামী মাস থেকে সীমানা পুনঃনির্ধারণের কাজ শুরু হয়ে চলবে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।
ইসির তথ্য অনুযায়ী, ৩১শে জুলাই সুশীল সমাজের সঙ্গে সংলাপের পর গণমাধ্যমের সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে সংলাপ হবে ৭ই আগস্ট। নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে সংলাপ হবে ১২ই আগস্ট। নির্বাচন পরিচালনা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা হবে ২০শে আগস্ট। নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ হবে ১৬ই আগস্ট থেকে ২রা অক্টোবর পর্যন্ত এর আগে গত ২৩শে মে রোডম্যাপের খসড়া ঘোষণা দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। খসড়া রোডম্যাপ চূড়ান্ত করতে গতকাল বিকাল ৩টায় পুনরায় কমিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই চূড়ান্ত সভার আগে গত তিন মাস ধরে রোডম্যাপ খসড়া নিয়ে একাধিক বৈঠক করেন ইসির সংশ্লিষ্টরা।
Share on Google Plus

About বাংলা খবর

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment