এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে চট্টগ্রামে অনুপস্থিত ৯০০

উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার প্রথম দিন রোববার চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে ৯০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। এছাড়াও পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করার দায়ে একজনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এদিকে এবারের পরীক্ষাকে শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে জেলা প্রশাসন ও চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে এবার ১০টি বিশেষ টিম ও ৪০টি সাধারণ টিম গঠন করা হয়েছে।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদেরও দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। রোববার সকালে পরীক্ষার সার্বিক বিষয় পরিদর্শন করতে নগরীর এনায়েতবাজার মহিলা কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিন।
কেন্দ্র পরিদর্শন করতে দিয়ে মো. সামসুল আরেফিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘পরীক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি প্রশ্নফাঁস রোধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরাও দায়িত্ব পালন করছেন। হরতালের মধ্যেও শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। সকল পরীক্ষাকে শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে প্রশাসন সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।’
চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম জানান, বোর্ডে এ বছর ২৩৮টি কলেজের ৮৩ হাজার ১৯৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে ৪১ হাজার ৯৩২ জন ছাত্র এবং ৪১ হাজার ২৬১ জন ছাত্রী। প্রথম দিন পরীক্ষায় ৯০০ জন অনুপস্থিত ছিল।
তিনি জানান, এবার বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৭ হাজার ৩০৮ জন, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ৩৪ হাজার ২৮৭ জন এবং মানবিক বিভাগ থেকে ৩১ হাজার ৫৯৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। চট্টগ্রাম মহানগরসহ কক্সবাজার ও তিন পাবর্ত্য জেলার ৯৮ কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে ১০টি বিশেষ টিম ও ৪০টি সাধারণ টিম গঠন করা হয়েছে।
শাহেদা ইসলাম জানান, প্রশ্নফাঁসের কোন গুজব ছড়ালে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার নির্দেশনা রয়েছে। মন্ত্রণালয় প্রশ্নফাঁস রোধে নানা ব্যবস্থাও গ্রহণ করেছে।
চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান সমকালকে বলেন, ‘বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষায় অসদুপায়ের দায়ে মাটিরাঙায় এক পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সে অন্যজনের হয়ে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিল। সন্দেহ হলে তাকে চালেঞ্জ করা হয়। পরে তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।’
>>>চিটাগাং ডেইলি ও সিটিজি টাইমস
Share on Google Plus

About Sadia Afroza

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment