সিরিয়ায় ‘বিষাক্ত গ্যাস’ হামলায় ৫৮ জনের মৃত্যু

সিরিয়ায় বিদ্রোহীদের দখলে থাকা খান শেইখুন শহরে আকাশপথে ‘বিষাক্ত গ্যাস’ হামলায় ১১ শিশুসহ কমপক্ষে ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। একটি পর্যবেক্ষণ সংস্থার বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা অনলাইন। খবরে বলা হয়, মঙ্গলবারের ওই হামলার পর অনেকের শ্বাসরোধ হয়ে অচেতন হয়ে পড়েছেন। কারো কারো মুখ থেকে বেরিয়ে এসেছে ফেনা। যুক্তরাজ্য-ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এক মেডিকেল সূত্রের বরাত দিয়ে জানায় যে, এটি একটি গ্যাস হামলার চিহ্ন। পর্যবেক্ষণ সংস্থাটি সিরিয়ার গৃহযুদ্ধকে খুব কাছ থেকে পর্যবেক্ষণ করা সত্ত্বেও হামলায় ব্যবহৃত পদার্থটির প্রকৃতি সম্বন্ধে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারে নি। তবে তারা জানিয়েছে, সিরিয়া অথবা রাশিয়ারই কোন বিমান এ হামলায় ব্যবহার করা হয়েছে।  সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কর্তৃপক্ষ এ ধরণের অস্ত্র ব্যবহারের কথা অস্বীকার করেছে। যদিও এ বিষয়ে সিরিয়ার সামরিক বাহিনীর মন্তব্য জানা যায় নি। উদ্ধারকারী দলের ভাষ্যমতে, রোববার রাশিয়ার যুদ্ধবিমান ইদলিব প্রদেশের উত্তরে অবস্থিত মারেত-আল-নুমান হাসপাতালে হামলা চালিয়েছে। সিরিয়ার এক সিভিল ডিফেন্স কর্মকর্তা জানান, ওই হামলায় অন্ততপক্ষে দশজন আহত হয়েছে এবং ধ্বংস হয়েছে একটি ভবন।  অপর এক কর্মকর্তা মাজিদ জানান, গত সপ্তাহ থেকে ইদলিব বেশকিছু বিমান হামলার শিকার হয়েছে। মঙ্গলবারের হামলা প্রদেশটির একটি প্রধান হাসপাতাল প্রায় গুঁড়িয়ে দিয়েছে এবং হাসপাতালটিকে ব্যবহারের অযোগ্য বানিয়ে ফেলেছে।  ডক্টরস উইদাউট বর্ডার্স জানায়, গত বছর বিভিন্ন সময়ে তারা সিরিয়ায় অবস্থিত বা সিরিয়াকে সমর্থন করে এমন ৩২ টি হাসপাতালে ৭১টি হামলার প্রতিবেদন পেয়েছে।
Share on Google Plus

About বাংলা খবর

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment