সরকার জঙ্গিবাদকে লালন করছে : রিজভী

সরকারের উদ্দেশে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকার যদি প্রকৃত অর্থেই জঙ্গিবাদের নিধন চায় তবে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করুক। আর না হলে বুঝবো সরকার নিজেদের স্বার্থে জঙ্গিবাদকে জিইয়ে রাখছে।
বাংলাদেশের সাথে ভারতের প্রতিরক্ষা চুক্তি নিয়ে ভারতের কমনসেন্স থাকা উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি বলেন, ভারত একটি বৃহৎ গণতান্ত্রিক দল, সেখানে অনেক বুদ্ধিমান ব্যাক্তি রয়েছে। বাংলাদেশের মানুষ কি ভাবছে এটা না ভেবেই যদি সিদ্ধান্ত নেয় তবে বুঝতে হবে ভারত বাংলাদেশকে তাদের উপরাষ্ট্র বানাতে চায়।
আজ সোমবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন প্রমুখ।
রিজভী বলেন, ভারত যদি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হয় তবে অবশ্যই বাংলাদেশের মানুষের চাওয়া পাওয়ার দিকে নজর দিবে।
বেগম খালেদা জিয়া ভারতের সাথে চুক্তির প্রতিবাদে কোনো কথা বলেছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ভারতের সাথে দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কথা বলেন। আমরা বিদেশে বন্ধু চাই প্রভু নয়।
ভারতের সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি হলে তা বাংলাদেশের জন্য মঙ্গল জনক হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব ভূলুণ্ঠিত হবে। দেশের নিরাপত্তা ভারতের কাছে গুম করে দেয়া হচ্ছে। সরকার জণগণের কথা না ভেবেই বাকশালী কায়দায় এই চুক্তি করছে বলেও জানান তিনি।
জঙ্গি এবং সরকার দুজনেই অস্ত্রের ভাষায় কথা
বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, সরকার নিজেদের ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করে রাখার জন্যই আওয়ামী জঙ্গিবাদের লালন করছে।
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে তিনি বলেন, বিএনপির প্রার্থী কে বিভিন্ন সময় হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে। নির্বাচনী প্রচারণায়ও চলছে অনিয়ম।
অনিয়মের অভিযোগ করেও প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, প্রশাসন নিজেদের জনগণের মনে করে না আওয়ামী লীগের মনে করে।
Share on Google Plus

About Sadia Afroza

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment