ট্রাম্পের সমালোচনায় হিলারি




যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন নীরব ছিলেন। তারপর এবারই প্রথম তিনি রাজনৈতিক মন্তব্য করেছেন। সমালোচনা করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রশাসনের। রিপাবলিকানরা অ্যাফোডেবল কেয়ার অ্যাক্ট (যা ওবামাকেয়ার নামে পরিচিত) বাতিল করেছে। তার স্থানে তারা নতুন বিল আনার চেষ্টা করেছে। তাদের এ উদ্যোগকে বিপর্যয় বলে আখ্যায়িত করেছেন হিলারি। তিনি বলেছেন, ট্রাম্প প্রশাসন এরই মধ্যে বেশ প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হয়েছে। এটা থেকে বোঝা যায় ট্রাম্পের নীতির বিরোধিতা শুরু হয়েছে এবং এটা কেবলই সূচনা। হিলারি ক্লিনটন ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রফেশনাল বিজনেস ওমেন সংগঠনের বার্ষিক সম্মেলনে মূল বক্তব্য রাখেন মঙ্গলবার। এর মধ্য দিয়ে তিনি প্রথম বড় ধরনের রাজনৈতিক সমালোচনার তীর ছুড়ছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন সিএনএন। এতে বলা হয়, সম্মেলনে বক্তব্য রাখার সময় হিলারি বেশির ভাগই নারীদের সম অধিকারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। ফাঁকে ফাঁকে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ও রিপাবলিকান দলের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, আমি যা চেয়েছিলাম, যার জন্য আমি কাজ করেছি নির্বাচনের ফল তেমনটা অবশ্যই হয় নি। নারী ও পুরুষদের কর্মক্ষেত্রে অভিন্ন সুবিধা এনে দেয় এমন বিষয়ে আমি কথা বলা বন্ধ করবো না কখনোই। উল্লেখ্য, নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর তিনি জনসমাবেশে সামান্য দু’একটি মন্তব্য করেছেন। নিজের টুইটারে টুইট করেছেন। তবে ব্যাপক অর্থে তিনি নীরব ছিলেন। নির্বাচনের পর তাকে দেখা যায় নিউ ইয়র্কে তার বাসভবনের পাশের বনের কাছে। সঙ্গে ছিলেন তার স্বামী, সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন। মঙ্গলবার তিনি বলেছেন, টাউন হল সম্মেলনে সেইসব মানুষ বক্তব্য রেখেছিলেন যারা কোনোদিন রাজনীতিতে সক্রিয় নন। তারা সেই সব মানুষ, যাদের কথা কখনো কেউ শোনে নি বা বলা হয় নি।
Share on Google Plus

About Nejam Kutubi

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment