আফগানিস্তান-পাকিস্তানে বরফধসে নিহত শতাধিক

আফগানিস্তান ও পাকিস্তানে ভারী তুষারপাত ও বরফধসে শতাধিক লোক প্রাণ হারিয়েছেন। বরফ ধসের পর আফগানিস্তানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় পাকিস্তান সীমান্তবর্তী নুরিস্তানের একটি গ্রামেই ৫৩ জন প্রাণ হারান। পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে বরফধসে ১৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এদের মধ্যে নয়জন চিত্রাল শহরের বাসিন্দা। ভয়াবহ এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে বেশ কয়েকটি বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে এবং মানুষ গাড়িতে প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় জমে মারা গেছেন। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের উত্তরাঞ্চলেও বরফধস হয়েছে। আফগানিস্তানের জাতীয় দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপি’কে বলেন, ‘নুরিস্তানের বার্জ মাতাল এলাকায় তুষারধসে দুটি পুরো গ্রাম চাপা পড়েছে।’
পার্শ্ববর্তী পার্বত্য প্রদেশ বাদাখাস্তানেও তুষারঝড় আঘাত হেনেছে। খারাপ আবহাওয়া ও তুষারপাতে রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আটকে পড়া মানুষের কাছে পৌঁছাতে উদ্ধারকর্মীদের যথেষ্ট বেগ পেতে হচ্ছে। তুষারপাতে কাবুলের প্রধান বিমানবন্দরের রানওয়েতে বরফ জমে থাকায় তা বন্ধ রয়েছে। কাবুল-কান্দাহার মহাসড়কে পুলিশ ও সৈন্যরা ২৫০টি গাড়ি উদ্ধার করেছে। এগুলো আটকা পড়েছিল। কাবুলের উত্তরাঞ্চলে সালাং পাসও বন্ধ রয়েছে। এখানে ২.৫ মিটার বরফ জমেছে। গাড়ির ভেতর প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় জমে অন্তত দু'জন চালকের মৃত্যু হয়েছে। কর্মকর্তারা এই তুষারঝড় অব্যাহত থাকার ব্যাপারে সতর্ক করেছে।
Share on Google Plus

About Sadia Afroza

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment