বিএনপির প্রবাসী নেতাসহ দুজন নিখোঁজ সুনামগঞ্জে

যুক্তরাজ্য বিএনপির সহসভাপতি ও সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি মুজিবুর রহমান (৫৬) ও তাঁর গাড়ির চালক রেজাউল হক (৩২) নিখোঁজ হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার রাত থেকে তাঁদের মুঠোফোন বন্ধ রয়েছে। এ ব্যাপারে গতকাল মঙ্গলবার সুনামগঞ্জ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। এদিকে সিলেটে নিখোঁজ হয়েছেন মো. ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ (৩৫) নামের একজন ব্যাংকপ্রহরী।
গতকাল দুপুর থেকে তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। পুলিশ পরিত্যক্ত অবস্থায় তাঁর বাইসাইকেলটি উদ্ধার করেছে। সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতারা জানান, প্রবাসী বিএনপির নেতা মুজিবুর রহমান রোববার সুনামগঞ্জ শহরের শহীদ মিনারে বিএনপির গণ-অনশন কর্মসূচিতে যোগ দেন। বিকেলে তিনি ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে সিলেটের উদ্দেশে রওনা দেন। এর পর থেকে তিনি ও তাঁর গাড়িচালক নিখোঁজ। মুজিবুর রহমানের গ্রামের বাড়ি দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের সুলতানপুরে। সুনামগঞ্জ শহরের হাজিপাড়া ও সিলেট শহরেও তাঁর বাড়ি রয়েছে। জিডিতে মুজিবুর রহমানের নিকটাত্মীয় রবিউল ইসলাম উল্লেখ করেন, রোববার বিকেলে মুজিবুর সিলেটের উদ্দেশে রওনা হন। রাত সাড়ে আটটা থেকে তাঁর মুঠোফোন বন্ধ। তাঁর বড় ভাই ও সুনামগঞ্জ শহরের বাসিন্দা আবুল বশর জানান, মুজিবুর রহমান স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে যুক্তরাজ্যে বাস করেন। ছয় মাস আগে একা দেশে আসেন। সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি এ ঘটনায় গতকাল দুপুরে শহরের একটি বিপণিবিতানে সংবাদ সম্মেলন করে। সংবাদ সম্মেলনে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে জীবিত ও সুস্থ অবস্থায় মুজিবুর রহমানের সন্ধান দাবি করা হয়। ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল বেলা তিনটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত ছাতক-সিলেট সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা। আজ বুধবার সকালে সংগঠনের পক্ষ থেকে শহরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন এবং পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।
এদিকে গতকাল এক বিবৃতিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মুজিবুর রহমান ও তাঁর গাড়িচালকের নিখোঁজের ঘটনায় নিন্দা ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। জানতে চাইলে সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জানে আলম খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘দুজন ব্যক্তির মোবাইল ফোন দুই দিন ধরে বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে—থানায় এ রকম একটি জিডি হয়েছে। এখানে বিএনপির কোনো নেতার কথা উল্লেখ নেই। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।’সিলেটে নিখোঁজ ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক আম্বরখানা শাখার প্রহরী। তাঁর গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলায়। আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক আম্বরখানা শাখার নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মান্নান জানান, তিনি গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ৮০ হাজার টাকা দিয়ে সাউথইস্ট ব্যাংক চৌহাট্টা শাখার অ্যাকাউন্টে জমা দিতে পাঠান প্রহরী ইব্রাহিমকে। কিন্তু সেই থেকে তাঁর মুঠোফোন বন্ধ। এ ব্যাপারে সিলেট কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহ মো. মুবাশ্বির জানান, ইব্রাহিমের ব্যবহূত বাইসাইকেলটি চৌহাট্টা মোড় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে এসআই জানান।
Share on Google Plus

About NewsCtg SubAdmin

    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment